অন্ধকার জগত থেকে স্বাভাবিক জীবনে ফেরার প্রত্যয়ে তালায় যুবকের আত্মসমর্পণ

ইলিয়াস হোসেন, তালা: চুরি, ছিনতাই ও মাদক বিকিকিনিসহ অন্ধকার জগতের নানা অপকর্মে জড়িয়ে একে একে ছয়টি মামলা খেয়েছেন আশরাফ মোল্লা। জেলও খেটেছেন কয়েকবার। জেল থেকে জামিনে বেরিয়ে ফের অন্ধকার জগতে পা বাড়ালেও এবার তার বোধদয় হয়েছে।

তাই এবার অন্ধকার জগত থেকে ফিরে স্বাভাবিক জীবনযাপনের স্বপ্নে আত্মসমর্পণ করেছে সে।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) স্ত্রী-সন্তান ও মাকে সাথে নিয়ে এসে তালা থানায় আত্মসমর্পণ করেন তালা উপজেলার মাগুরা ইউনিয়নের চাঁদকাটি গ্রামের মৃত সওকত মোল্লার ছেলে আশরাফ।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, আশরাফ নিজ এলাকাসহ জেলা জুড়ে বিভিন্ন স্থানে চুরি, ছিনতাই ও মাদক বিকিকিনিতে লিপ্ত ছিলেন। এলাকাবাসী কয়েকবার চুরি যাওয়া মালামালসহ তাকে আটক করে থানায় সোপর্দ করেছে। জামিনে বেরিয়ে ছয় মামলার আসামি আশরাফ কয়েক বছর গাঁ ঢাকা দিয়েছিলো।

কিন্তু এসব ছেড়ে এবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার প্রত্যয়ে সাতক্ষীরার পুলিশ সুপারের শরণাপন্ন হয়ে তার পরামর্শ অনুযায়ী থানায় আত্মসমর্পণ করেছেন তিনি। একটি বার সুযোগ চেয়েছেন ভালো হয়ে স্বাভাবিকভাবে জীবনযাপনের।

আশরাফ মোল্ল্যার মা আনোয়ারা বেগম বলেন, আমার ছেলে কসময় এলাকায় চুরি ছিনতাই করতো। এখন সে ভালো হয়ে থাকতে চায়। কাজ-কর্ম করে সংসার চালাতে চায়। সকলের কাছে অনুরোধ তাকে একটিবার সুযোগ দিন।

স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চাওয়া আশরাফ মোল্লা জানান, আমি আগে চুরি, ছিনতাই ও মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত ছিলাম। কয়েকবার এসব কারণে জেল-হাজত খেটেছি। এখন জামিনে আছি। আমার দুটি ছেলে বড় হয়েছে। তাদের মুখের দিকে তাকিয়ে সব কিছু ছেড়ে দিয়ে ভালোভাবে স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে চাই। আর কখনও অন্ধকার পথে পা বাড়াবো না। আমাকে আপনারা একটু সুযোগ দেন, ভালো হওয়ার জন্য।

এ বিষয়ে তালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু জিহাদ ফখরুল আলম খান জানান, আশরাফ চুরি ছিনতাই ও মাদক ব্যবসায় যুক্ত ছিলেন। তার নামে ২টি মাদক ও ৪টি চুরি মামলা রয়েছে। সম্প্রতি এলাকায় কয়েকটি চুরির ঘটনায় তাকে সন্দেহ করা হলে সে পুলিশ সুপারের পরামর্শে থানায় আত্মসমর্পণ করে এবং আর কখনও চুরি, ছিনতাই ও মাদক ব্যবসা করবে না মর্মে প্রতিজ্ঞা করে। তাই তাকে একটিবার সুযোগ প্রদান করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *