কপোতাক্ষ পাড়ে সাবেক স্বামীর দেয়া আগুনে দগ্ধ তামান্নার মৃত্যু!

ইলিয়াস হোসেন, তালা: সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটায় সাবেক স্বামীর দেয়া আগুনে দগ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন তামান্না খাতুন মারা গেছেন।

রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটে টানা পাঁচদিন চিকিৎসাধীন থাকার পর সোমবার (৯ মে) রাত ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

নিহত তামান্না খাতুন জেলার তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার বড় কাশিপুর গ্রামের শেখ আব্দুল হকের মেয়ে।

পাটকেলঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাঞ্চন কুমার রায় বলেন, দগ্ধ মেয়েটি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়ার খবর পেয়েছি। এরই মধ্যে তার সাবেক স্বামী সাদ্দাম হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনিও শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তামান্নার বর্তমান স্বামী ফরহাদ হোসেনও দগ্ধ অবস্থায় একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার (৫ মে) সন্ধ্যায় বাড়ির পাশে কপোতাক্ষ নদীর পাড়ে বর্তমান স্বামীকে নিয়ে বসে ছিলেন তামান্না। এসময় তার সাবেক স্বামী সাদ্দাম হোসেন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে নিজের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে একসঙ্গে মরবেন বলে তামান্নাকে জড়িয়ে ধরেন। তখন সাদ্দাম, তামান্না ও ফরহাদ- তিনজনই কম বেশি দগ্ধ হন।

এ ঘটনায় তামান্নার বাবা আব্দুল হক পাটকেলঘাটা থানায় সাদ্দাম হোসেনসহ ৬ জনের নাম উল্লেখসহ ৯ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। এর মধ্যে সাদ্দাম হোসেন কলারোয়া উপজেলার তুলসিডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা। তিনি মালয়েশিয়া থেকে সম্প্রতি দেশে এসেছেন।

তামান্নার পরিবারের সদস্যরা জানান, মঙ্গলবার (১০ মে) তার মৃতদেহ সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটায় আনা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *