রবিবার , ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. English
  2. অনুষ্ঠানসমূহ
  3. অর্থ বাণিজ্য
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইসলাম
  6. ক্যারিয়ার
  7. খুলনা
  8. খেলা
  9. চট্টগ্রাম
  10. জাতীয়
  11. ঢাকা
  12. তথ্যপ্রযুক্তি
  13. পরিবেশ
  14. ফটো গ্যালারি
  15. বরিশাল

টানা অষ্টম হার ঢাকার, বড় জয়ে সেরা চারে বরিশাল

প্রতিবেদক
the editors
ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২৪ ১১:৩৪ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক : কিছুতেই কিছু হচ্ছে না। প্রথম ম্যাচ জয়ের পর হেরেই চলেছে দুর্দান্ত ঢাকা। আজ (শনিবার) মিরপুর শেরে বাংলায় বিপিএলে তাদের ৪০ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে ফরচুন বরিশাল।

বড় জয়ে পাঁচ থেকে পয়েন্ট তালিকার চার নম্বরে উঠে এসেছে তামিম ইকবালের দল। ৮ ম্যাচে তাদের জয় ৪টি। অন্যদিকে ৯ ম্যাচ খেলে মাত্র এক জয় নিয়ে তলানিতেই ঢাকা।

১৯০ রানের বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে কখনই ম্যাচে ছিল না দুর্দান্ত ঢাকা। এক অ্যালেক্স রস ছাড়া কেউ দলের জন্য লড়তে পারেননি। ৩০ বলে ৫ চার আর ৩ ছক্কায় ৫২ রান করে ইনিংসের ৯ বল বাকি থাকতে সাইফউদ্দিনের শিকার হন রস।

এসএম মেহরব করেন ২৯ বলে ২৮। বাকিরা কেউ বিশের ঘরও ছুঁতে পারেননি। সবমিলিয়ে আরও একবার সমর্থকদের হতাশা উপহার দিয়ে দুই বল বাকি থাকতে ১৪৯ রানে অলআউট হয় দুর্দান্ত ঢাকা।

সাইফউদ্দিন ২১ রানে নেন ৩টি উইকেট। দুটি করে উইকেট মেহেদি হাসান মিরাজ এবং ওবেদ ম্যাকয়ের।

এর আগে শুরুতেই বিপদে পড়েছিল ফরচুন বরিশাল। দলীয় ১৬ রানে তামিম ইকবাল, ১৭ রানে আহমেদ শেহজাদ এবং ১৯ রানের মাথায় আউট হয়ে যান মুশফিকুর রহিম। দ্রুত তিন শীর্ষ ব্যাটারকে হারিয়ে ধুঁকতে শুরু করছিলো বরিশাল।

সেখান থেকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের অভিজ্ঞতা এবং সৌম্য সরকারের ফর্মে ফিরে আসা ইনিংসে ভর করে দুর্দান্ত ঢাকার সামনে ১৮৯ রানের বিশাল স্কোর দাঁড় করায় ফরচুন বরিশাল। ৭৫ রানে অপরাজিত থাকেন সৌম্য সরকার। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ আউট হন ৭৩ রান করে।

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন বরিশাল অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই দুর্দান্ত ঢাকার বোলারদের তোপের মুখে পড়ে তারা। বিশেষ করে তাসকিন এবং শরিফুলের তোপের মুখে ১৯ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বসে বরিশাল। এরপর রিয়াদ এবং সৌম্য মিলে গড়েন ১৩৯ রানের জুটি।

শেষ পর্যন্ত এই জুটি ভাঙলেন শরিফুল ইসলাম। ততক্ষণে ৪৭ বলে ৭৩ রানের ঝোড়ো ইনিংস উপহার দিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ১৭তম ওভারের শেষ বলে শরিফুলের বল গ্লাভসে লাগিয়ে উইকেটের পেছনে জমা দেন তিনি। ইনিংস সাজান ৭টি বাউন্ডারি এবং ৪টি ছক্কা দিয়ে।

৫ নম্বরে ব্যাট করতে নামেন শোয়েব মালিক। সৌম্য এবং শোয়েব মালিক মিলে ফরচুন বরিশালের রান নিয়ে যান ৪ উইকেট হারিয়ে ১৮৯ রানে। ৪৮ বলে অপরাজিত ৭৫ রান করেন সৌম্য সরকার। ৪টি বাউন্ডারির সঙ্গে ৬টি ছক্কার মার মারেন তিনি।

 

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ - জাতীয়

error: Content is protected !!